আজ: মঙ্গলবার | ১৩ এপ্রিল, ২০২১ | ৩০ চৈত্র, ১৪২৭ | ৩০ শাবান, ১৪৪২ | সকাল ৭:৩২

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » জাতীয় » মিতা হকের মৃত্যু শোকাহত রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী

আ’লীগ অফিস পোড়ালো হেফাজত

০৪ এপ্রিল, ২০২১ | ১:৫৮ পূর্বাহ্ণ | বাংলাদেশ বার্তা | 79 Views

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারীসহ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় রয়েল রিসোর্ট থেকে নিয়ে গেছেন তার সমর্থকরা। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় তাকে নিয়ে যায়। ওই সময়ে ওই রিসোর্টে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী সমর্থকেরা। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে বিক্ষোভ, আওয়ামী লীগের অফিস ভাঙচুর করে। জানা গেছে, গতকাল শনিবার বিকেলে মামুনুল হক বিকেলে সোনারগাঁ রয়েল রিসোর্টে আসেন। তখন সঙ্গে একজন নারী ছিল। ওই সময়ে বিষয়টি দেখতে পেরে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, ছাত্রলীগ নেতা সোহাগ রনি সহ অনুগামীরা উপস্থিত হয়ে রিসোর্টের ৫ম তালার ৫০১ নম্বর কক্ষে তাকে অবরুদ্ধ করে ফেলে। তারা মামুনুল হকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা গিয়ে সেখানে হাজির জন। মামুনুল হকের দাবি, সঙ্গে থাকা নারী নাম আমিনা তৈয়্যব। ২ বছর আগে তিনি বিয়ে করেছেন। তিনি দ্বিতীয় স্ত্রী। আমিনাকে সঙ্গে নিয়ে রিসোর্টে ঘুরতে গিয়েছিলেন তিনি। মামুনুল হক বলেন, মাস্তান প্রকৃতির লোকেরা এসে আমাকে আমার ওয়াইফসহ নাজেহাল করেছে। আমাকে আক্রমণ করেছে। আমার বক্তব্য পরিষ্কার, আমরা এখানে একটু রিফ্রেশমেন্টের জন্য এসেছিলাম। এখানে অনেক উচ্ছৃঙ্খল লোক এসেছে। আপনারা দেখেছেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।’ নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম জানান, মামুনুল হক নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানাধীন রয়েল রিসোর্টের একটি কক্ষে এক নারীসহ অবস্থান করছেন- এমন খবরে স্থানীয় লোকজন রিসোর্ট ঘেরাও করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। মামুনুল হক পুলিশকে জানিয়েছেন সঙ্গে থাকা নারী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। পরে পুলিশ তাকে নিরাপত্তা দিয়ে সেখান থেকে উদ্ধার করেছে। এদিকে রাত ৭টায় শত শত লোকজন রিসোর্টের সামনে জড়ো হন। সেখানে তারা গেট ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। ওই সময়ে মামুনুল হক ও তার স্ত্রী বেরিয়ে আসে। বিক্ষুব্ধ জনতা তখন রিসোর্ট ভাঙচুর করে। লোকজন মামুনুল হককে সঙ্গে নিয়ে উপজেলার আমিনপুর ঈদগাহ ময়দানে যান। সেখানে মামুনুল হক বিক্ষুব্ধ জনতাকে শান্ত থাকতে বলেন। তিনি ওই এলাকা ছেড়ে গেলেও স্থানীয়রা মহাসড়ক অবরোধ করে।



Comment Heare

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this: