আজ: মঙ্গলবার | ১৩ এপ্রিল, ২০২১ | ৩০ চৈত্র, ১৪২৭ | ৩০ শাবান, ১৪৪২ | সকাল ৬:৪২

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » জাতীয় » মিতা হকের মৃত্যু শোকাহত রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী

কিশোরগ্যাংয়ের হামলায় আশংকাজনক কলেজ ছাত্র

০২ এপ্রিল, ২০২১ | ১:০৪ অপরাহ্ণ | বাংলাদেশ বার্তা | 63 Views

কোনভাবে দমানো যাচ্ছে শহর ও শহরতলীতে বেড়ে উঠা কিশোরগ্যাংদের। প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও এ কিশোরগ্যাংয়ের হামলা শিকার হচ্ছে বিভিন্ন বয়সী মানুষ। তেমনই পবিত্র শবে-বরাতের নামাজ আদায় করতে গিয়েও এ কিশোরগ্যাংয়ের হামলা শিকার হয়েছে ফতুল্লার পশ্চিম লামাপাড়া মো.জাকিরের ছেলে একাদশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী মো.জুবায়ের আহম্মেদ। এ বিষয়ে মো.জাকির সস্তাপুর এলাকার (উপজেলা কলোনী) ফাহিমগংদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগসুত্রে জানা যায়, শবে-বরাতের রাতে প্রতিবেশী বিল্লালের ছেলে মুন্নার সাথে নামাজ শেষে কবর জিয়ারত করে বাসায় আসার পথে উপজেলার মেইন গেইটের সাথে কার্লভাটের উপর ফাহিম,সিয়াম,হাসানসহ অজ্ঞাত ১০/১২ জন একত্রিত হয়ে আমার ছেলে ও মুন্নাকে ঘিরে ফেলে। ফাহিমদেও হাতে থাকা অস্ত্রসস্ত্র দেখে পালিয়ে গেলেও আমার ছেলে পারেনি। এ সময় ফাহিমগংদের হাতে থাকা ছোড়া দিয়ে আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দোশ্যে পিঠে,কোমড়ের বাম পার্শে,বুকে,বাম হাতে উপর্যূপরি কোপাইয়া গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। ফলে আমার ছেলের বাম হাতের একটি আঙ্গুল কেটে মাটিতে পড়ে যায়। এ সময় আমার ছেলে মাটিতে লুটাইয়া পড়লে সিয়াম আমার ছেলেকে হত্যার জন্য কোপাইতে থাকে এবং হাসান তার হাতে থাকা হকিষ্টিক দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে। এ সময় আমার ছেলে বাচার জন্য চিৎকার দিয়ে দরগাবাড়ির মসজিদ রোডে শিক গার্মেন্টস এর সামনে পৌছালে বিবাদীরা পুনরায় আমার ছেলেকে কোপাতে থাকে। ছেলের চিৎকারে শবেবরাতের নামাজি মুসুল্লীরা এগিয়ে এসে আমার ছেলেকে রক্ষা করে। এবং তাদের সহযোগিতায় আমি আমার ছেলেতে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শষ্যা হাসপাতালে চিকিৎসা করতে নিয়ে গেলে চিকিৎমকরা আমার ছেলের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় ঢাকা জাতীয় পঙ্গু ও পুর্নবাসন কেন্দ্রে রেফার্ড করেন।



Comment Heare

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this: