আজ: শুক্রবার | ৫ মার্চ, ২০২১ | ২০ ফাল্গুন, ১৪২৭ | ২০ রজব, ১৪৪২ | দুপুর ১২:৪৮

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » আইন আদালত » না’গঞ্জের বার ভবন পরিদর্শনে উপ-সচিব

গার্মেন্টস শ্রমিক কে কুপিয়ে জখম

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ | ১২:৩৪ অপরাহ্ণ | বাংলাদেশ বার্তা | 115 Views

ফতুল্লা প্রতিনিধি

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফতুল্লার মাসদাইরে গৌতম চন্দ্র দাস(২৭) নামক এক গার্মেন্টস শ্রমিক কে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা।

আহত গার্মেন্টস শ্রমিক গৌতম চন্দ্র দাস উত্তর মাসাদাইরের সোহেল ডাইং সংলগ্ন গলির জীবন চন্দ্র দাসের পুত্র।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) রাত ৮ টায় ফতুল্লা থানার মাসদাইরস্থ সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায়।এ ঘটনায় হামলার শিকার গার্মেন্টস শ্রমিক গৌতম চন্দ্র দাসের মা সবিতা রানী দাস বাদী হয়ে ফতুল্লা থানার মাসদাইর শেরেবাংলা রোডের মৃত আলী আহাম্মেদের পুত্র মিথুন(৩২),  মাসদাইর পাকাপুুল এলাকার প্রাণের পুত্র রাকিব(৩০),সুমন ওরফে মাইচ্ছা সুমন(৩০)  সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৪/৫ জনকে আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনার পর পর মাসদাইর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মিথুনকে আটক করেছে বলে জানায় পুলিশ।

বাদীর লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায়, হামলার শিকার বাদীর পুত্র একজন গার্মেন্টস শ্রমিক। অভিযুক্ত সন্ত্রাসীদের সাথে তার ছেলের পূর্ব শত্রুতা ছিলো।সেই শত্রুতার জের ধরে সোমাবার রাত ৮ টার দিকে মাসদাইর সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় হামলাকারীরা তার ছেলেকে একা পাইয়া পথরোধ করে তাদের সাথে থাকা দেশীয় তৈরী ধারালো চাপাতি,রামদা দিয়েন কোপাতে থাকে।সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাচঁতে তার ছেলে ডাক-চিৎকার করলে স্থানীয় পথচারী ও নিকটাত্মীয়রা আগাইয়া আসিলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়।এ সময় হামলাকারীরা বাদীর পুত্রের সাথে থাকা একটি মোবাইল ফেন ও নগদ ১৫ হাজার নয়শত টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। মারাত্নক আহতবস্থায় তাকে উদ্বার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

ফতুল্লা থানার এস,আই আরিফ পাঠান জানান,টাকা-পয়সার লেনদেন কে কেন্দ্র করে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে   হামলাকারীরা গার্মেন্টস শ্রমিক গৌতমকে সোমবার রাতে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে বাদীর দেয়া অভিযোগে অভিযুক্ত মিথুন কে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে।



Comment Heare

Leave a Reply

Top