আজ: মঙ্গলবার | ২৬ অক্টোবর, ২০২১ | ১০ কার্তিক, ১৪২৮ | ১৯ রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ | বিকাল ৩:০১

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » সারাদেশ » চট্টগ্রাম বিভাগ » কুমিল্লা » কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যানচাপায় নিহত ২

জিততে হলে বাংলাদেশের দরকার ১৬২ রান

১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৬:৪৭ অপরাহ্ণ | Mehedi Hasan | 254 Views

সিরিজের শেষ ম্যাচে কিউইরা মাত্র ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬১ রান তোলে। সর্বশেষ ১০ ম্যাচে মিরপুরে এটি সর্বোচ্চ রান।

অধিনায়ক টম লাথাম সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন। ৩৭ বলে ২টি চার ও ২টি ছয়ে তিনি এই রান করেন। এ ছাড়া ২৪ বলে ৪১ রান করে ফিন অ্যালেন। লাথামের সঙ্গে ১০ বলে ১৭ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন কোল ম্যাককনচি। মোস্তাফিজ-সাইফউদ্দিনের পরিবর্তে আসা তাসকিন-শরিফুল সুবিধা করতে পারেননি। শরিফুল সর্বোচ্চ ২ উইকেট নিলেও ৪ ওভারে তিনি ৪৮ রান দেন। এ ছাড়া তাসকিন ৩৪ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট।

নিউ জিল্যান্ড: ২০ ওভারে ১৬১/৫

তাসকিন-সোহানে ফিরলেন নিকোলস

১৭তম ওভারের দ্বিতীয় বলে হেনরি নিকোলসকে ফেরান তাসকিন আহমেদ। এই পেসারের ওয়াইড ইয়র্কারে পয়েন্টে খেলতে গিয়ে বল ব্যাটের কানায় লেগে নুরুল হাসান সোহানের দুর্দান্ত ক্যাচে সাজঘরে ফেরেন। ২১ বলে ২১ রান আসে নিকোলসের ব্যাট থেকে।

আফিফের পর নাসুমের আঘাত

কলিড ডি গ্র্যান্ডহোমকে দ্রুত সাজঘরে পাঠালেন নাসুম আহমেদ। ইনিংসের ১১তম ওভারের চতুর্থ বলে ক্যাচ দেন শামীম হোসেনের হাতে। তার ব্যাট থেকে আসে ৮ বলে ৯ রান। এই সিরিজে চতুর্থবার নাসুমের বলে আউট হয়েছেন গ্র্যান্ডহোম।

ইয়ংকে ফেরালেন আফিফ

জোড়াপতনের পর খেলার হাল ধরার চেষ্টা করেছিলেন টম লাথাম-উইল ইয়ং। কিন্তু আফিফ বেশিদূর এগোতে দেননি। ইয়ংকে দুই অঙ্কের ঘর ছোয়ার আগেই পাঠান সাজঘরে। আফিফের লেন্থ বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ইয়ং। তার ব্যাট থেকে আসে ৮ বলে ৬ রান।

শরিফুলের জোড়া আঘাত, ফিরলেন অ্যালেনও

নিজের প্রথম ওভারে এসে ১৯ রান দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে হজম করেন ৬। এক বল পরেই আবার চার হজম করতে হয়। এরপর শুধু শরিফুলের সময়। মুশফিকের হাতে ক্যাচ বানিয়ে রাচিন রবীন্দ্রকে ফেরানোর পর অ্যালেনকে বোল্ড করেন। রবীন্দ্র ১২ বলে ১৭ ও অ্যালেন ২৪ বলে ৪১ রান করেন। পাওয়ার প্লের প্রথম ৬ ওভারে সাত চার ও তিন ছয়ে কিউইরা দুই উইকেট হারিয়ে রান তোলে ৫৮। বাংলাদেশ ১৫টি ডট বল আদায় করে নেয়।

অ্যালেন ঝড়ে নিউ জিল্যান্ডের দারুণ শুরু

সিরিজের আগের ম্যাচগুলোতে শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছিল নিউজিল্যান্ড। পঞ্চম ম্যাচে এসে এর ব্যতিক্রম ঘটে। শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছে তাদের। শরিফুলের করা ইনিংসের চতুর্থ ওভারে অ্যালেন ১৯ রান নেন। প্রথম ৪ ওভারে আসে ৩৮ রান আসে। মাত্র ১৭ বলে ২৮ রান নেন অ্যালেন, ৭ বলে ১০ রান নেন রাচিন রবীন্দ্র।

চার পরিবর্তন নিয়ে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ একাদশে চার পরিবর্তন ঘটেছে। একাদশে ঢুকেছেন সৌম্য সরকার, শামীম হোসেন, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম। সাকিব-মোস্তাফিজ-সাইফউদ্দিন-মেহেদীকে বিশ্রামে রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশ একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, শামীম হোসেন, শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও নাসুম আহমেদ।

কিউই একাদশে তিন পরিবর্তন

নিউ জিল্যান্ড একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন টিকনার-বেনেট, আর ইনজুরির জন্য নেই ব্লান্ডেল। একাদশে ঢুকেছেন স্কট কুগেলেইন, বেন সিয়ার্স, জ্যাকব ডাফি।

রাচিন রবীন্দ্র, ফিন অ্যালেন, টম ল্যাথাম (অধিনায়ক), উইল ইয়াং, হেনরি নিকোলস, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, কোল ম্যাককনচি, এজাজ প্যাটেল, স্কট কুগেলেইন, বেন সিয়ার্স, জ্যাকব ডাফি।



Comment Heare

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this: