আজ: মঙ্গলবার | ১৮ জানুয়ারি, ২০২২ | ৪ মাঘ, ১৪২৮ | ১৪ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ | দুপুর ২:১২

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » নারায়ণগঞ্জ » না'গঞ্জ সদর » তৈমূর পেলেন হাতি, আইভী নৌকা

ডা. মুরাদের বিরুদ্ধে আরও তিন জেলায় মামলা

২১ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৭:৫৮ অপরাহ্ণ | Mehedi Hasan | 238 Views

সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান ও উপস্থাপক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদের বিরুদ্ধে আরও তিন জেলায় মামলার আবেদন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) দুপুরে পৃথকভাবে এ মামলার আবেদন করা হয়।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে ডা. মুরাদ ও উপস্থাপক নাহিদের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীপুর আদালতে জেলা আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আহমেদ ফেরদৌস মানিক মামলার আবেদন করেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নাতনি জাইমা রহমানের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেওয়ার ঘটনায় লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী সদর আদালতে এ মামলার আবদেন করা হয়।

আদালত সূত্র জানায়, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সদর আদালতের অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার হোসেন শুনানি শেষে আবেদনটি আমলে নিয়েছেন। তবে কোনও আদেশ দেননি। পরে আদেশ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

বাদী আহমেদ ফেরদৌস মানিক বলেন, ডা. মুরাদ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নাতনি জাইমা রহমানের সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। এটি নারী সমাজের জন্য অপমানজনক। এজন্য জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের পক্ষ থেকে মামলার আবদেন করেছি।

অন্যদিকে মাগুরায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ওই দুইজনের বিরুদ্ধে দুপুরে জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি অ্যাডাভোকেট রোকনুজ্জামান খান মামলার আবেদন করেন।

মামলার আবেদনে বাদী অভিযোগ করেছেন, গত ১ ডিসেম্বর এক সাক্ষাতকারে সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান উদ্দেশ্যমূলক জিয়া পরিবার ও ব্যারিস্টার জাইমা রহমান সম্পর্কে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন। যা যে কোনো নারীর জন্য মর্যাদা হানিকর। যা পরবর্তীতে ১ নম্বর আসামি তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে প্রচার ও প্রকাশ করেন। দ্বিতীয় আসামি মহিউদ্দিন এই বক্তব্য ধারণ করে ইউটিউবে আপলোড করায় আসামিদ্বয়ের অশালীন মিথ্যাচার ও নারীর প্রতি অবমাননামূলক বক্তব্য মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে। যে কারণে আমি ক্ষুব্ধ হয়ে আজ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার আবেদন দাখিল করেছি।

আদালতের বিচারক মাহবুবা শারমিন মামলাটি শুনানির জন্য আগামী ৪ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন বলে জানা গেছে।

এছাড়া নীলফামারীর অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ডা. মুরাদ হাসান ও মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদ নামে মামলার আবেদন করেছেন জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান খান রিনো। মঙ্গলবার দুপুরে বিচারক মো. হাফিজুল ইসলাম বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। তবে কোন আদেশ দেননি।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ১ ডিসেম্বর ফেইসবুক পেইজে লাইভে এসে জিয়া পরিবার ও বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে ব্যারিস্টার জাইমা রহমানের নামে অত্যন্ত কুরুচিপুর্ণ এবং নারী বিদ্বেষী বক্তব্য প্রদান করেন সাবেক তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপি। ডিজিটাল প্লাটফর্মের এই পেইজে সাক্ষাতকারটি গ্রহণ করেন মহিউদ্দিন হেলাল নাহিদ এক ব্যক্তি। মুরাদ হাসান সাংবিধানিকভাবে শপথ নিয়ে তার নানাবিধ বক্তব্যের মাধ্যমে সংবিধান লঙ্ঘণ করেছেন। তার বক্তব্য নারী সমাজের প্রতি অবমাননাকর, অপমানজনক এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

মামলায় স্বাক্ষী হিসেবে এ্যাডভোকেট আবু মোহাম্মদ সোয়েম, আল মাসুদ চৌধুরী, কাজী আখতারুজ্জামান জুয়েল, গোলাম মোস্তফা সজীব, আজিম হোসেন ও নুর আসাদুজ্জামান মিশন রয়েছেন।



Comment Heare

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this: