আজ: বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪২ হিজরি | সকাল ৯:০৫
শিক্ষা

দগ্ধ সালমা পাচ্ছে না সাহায্য

বাংলাদেশ বার্তা | ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৪:৪৪ অপরাহ্ণ

তল্লায় মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ সালমা বেগম সেদিনের ভয়াবহ ঘটনার দুঃসহ সৃতি নিয়ে বিছানায় কাতরাচ্ছেন। তবে অগ্নিদগ্ধদের নামের তালিকায় তার নাম না থাকায় তিনি পাচ্ছেন না কোন সহায়তা। গতকাল শুক্রবার দুপুরে আলাপকালে এসব কথা জানান সালম। সেদিনের ঘটনা তুলে ধরে চোখের পানিতে এমন ঘটনা যেন আর না ঘটে সেজন্য সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি জানিয়েছেন। সরকারিভাবে সহায়তা না পেলেও কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ তাকে কিছু আর্থিক সহায়তা করেছেন।  ফতুল্লার তল্লা এলাকার সরদারপাড়ায় গৃহিণী সালমা বেগম সেদিন বিস্ফোরণের আগেই ঘর থেকে বেরিয়েছিলেন ঔষধ কিনতে। মসজিদের সামনে রাস্তা দিয়ে যাবার সময় বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয় এবং আগুনের ফুলকি এসে তার গায়ে পড়ে।  সালমা বেগম জানান, আমি তো আগুনে পুড়ে দৌড়ে ঘরে এসে পানি ঢালি। অন্ধকারে কিছুই দেখছিলাম না। কিছুক্ষন পর দেখি শরীরের সকল চামড়া পুড়ে গেছে। পরে আমাকে নিয়ে সবাই হাসপাতালে যায়। হাসপাতালের বার্ণ ইউনিট থেকে আমাকে কোণ ঔষধ দেয়নি। শুধুমাত্র ব্যান্ডেজ করে ছেড়ে দিয়েছে আর ঔষধ লিখে দিয়েছে। স্বামী বিদ্যুতের কাজ করে, সেও ঘরেই ছিল। সে আমাকে নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বাড়িতে নিয়ে এসেছে কাল।  তিনি বলেন, হটাত করে এত জোরে শন্দ হলো আমি কিছুই বুঝে উঠতে পারিনি। গায়ে আগুন এসে লাগলো। ভেতরে একবার তাকিয়েছিলাম দেখি মানুষের শরীরে আগুন জ্বলছে। এই দৃশ্য মনে হলে আর ঠিক থাকতে পারিনা। আল্লাহ বাঁচিয়েছেন তবে এমন যেন আর কখনো না হয় সেটিই চাই।





এই বিভাগের আরো সংবাদ




Leave a Reply

%d bloggers like this: