আজ: মঙ্গলবার | ১৩ এপ্রিল, ২০২১ | ৩০ চৈত্র, ১৪২৭ | ৩০ শাবান, ১৪৪২ | সকাল ৮:৩১

সংবাদ দেখার জন্য ধন্যবাদ

Home » জাতীয় » মিতা হকের মৃত্যু শোকাহত রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রী

ফতুল্লায় রডের বদলে বাঁশকান্ড!

০৩ মার্চ, ২০২১ | ১:৫৩ পূর্বাহ্ণ | বাংলাদেশ বার্তা | 161 Views

ফতুল্লার কুতুবপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে সড়ক ও ড্রেন নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ড্রেনের ঢালাই কাজে রডের বদলে বাঁশ ব্যবহারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। তবে স্থানীয় মেম্বার বলছেন স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে টেন্ডার বর্হিভূত অতিরিক্ত কাজ করার সময়ে সেখানে ড্রেনের উপরে ঢালাইয়ের নিচে বাঁশের মাচা ব্যবহার করেছেন। তাদের টেন্ডারের সিডিউলেও কোথাও রড ব্যবহারের কথা উল্লেখ ছিলনা। সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুকে এক ব্যক্তি দু’টি ছবি আপলোড করে লিখেছেন, “কুতুবপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য জামান মিয়ার উন্নয়ন ফাঁস, রডের বদলে বাঁশ। তার দাবী তিনি এলাকাবাসীর উপকার করেছেন নিজের পকেটের টাকায়, তবে রডের বদলে বাঁশ দিয়ে কেমন উপকার করলেন এই ইউপি সদস্য তার কোন সঠিক উত্তর দিতে পারেননি তিনি। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার দেলপাড়া খালপাড় এলাকায় একটি ড্রেন নির্মাণের কাজে তিনি এমন কাজ করেন।” এদিকে কুতুবপুরে সড়ক ও ড্রেন নির্মাণকাজে রডের বদলে বাঁশ ব্যবহার করা হয়েছে এমন অভিযোগ তুলে একাধিক ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুকে পোষ্ট দিয়েছেন। যা নিয়ে সর্বত্র উঠেছে বিরূপ সমালোচনার ঝড়। জানতে কুতুবপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য জামান মিয়ার মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি জানান, রাস্তাটি খালপাড় থেকে আউয়াল সাহেবের ‘স’ মিল পর্যন্ত করার জন্য টেন্ডার হয়েছিল যা দৈর্ঘ্যে সাড়ে ৫০০ ফুটের মতো। রাস্তাটি একটি ৬ ফুটের সরু রাস্তা। রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কাজ সিসি ঢালাই হওয়ার কথা। তবে স্থানীয় এলাকাবাসী নির্মাণ কাজের সময়ে আশেপাশের গলিসহ আরো বেশ কিছু সড়ক নির্মাণ করে দেওয়ার দাবি জানায়। সিসি ঢালাইকাজে রড ব্যবহারের কথা উল্লেখ ছিলনা। কিন্তু আমি সড়কটি যাতে মজবুত হয় সেজন্য নিজ উদ্যোগে রড কিনে দিয়েছি। সাড়ে ৫০০ ফুটের মতো সড়ক টেন্ডার হলেও আমি নিজ উদ্যোগে নিজস্ব খরচে আশেপাশের গলির সড়কসহ আরো প্রায় সাড়ে ৩শ’ ফুটের মতো ঢালাই করে দিয়েছি। এলাকাবাসীর চাহিদার প্রেক্ষিতেই ড্রেনের উপরে মাচা রেখে সড়কটি ড্রেনসহ একেবারে ঢালাই দেওয়া হয়েছে। অথচ এটাকে অনিয়ম ও দুর্নীতি বলে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন।



Comment Heare

Leave a Reply

Top
%d bloggers like this: