আজ: শুক্রবার | ১৪ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৪শে জিলহজ, ১৪৪১ হিজরি | বিকাল ৫:২০
বন্দর

বন্দরের লাঙ্গলবন্দে হচ্ছে আধুনিক পর্যটন নগরী

বাংলাদেশ বার্তা | ০১ আগস্ট, ২০২০ | ৯:০২ পূর্বাহ্ণ

বন্দর(নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের বন্দরের লাঙ্গলবন্দে হচ্ছে আধুনিক পর্যটন কেন্দ্র। একটি আধুনিক পর্যটন নগরী গড়ার লক্ষ্যে লাঙ্গলবন্দ মহাষ্টমী পূণ্যস্নান উৎসবের উন্নয়ন কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। ইতিমধ্যে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ১২০৭৪ লাখ টাকা এবং ১১০০ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ডিপিপি প্রণয়ন করে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে দাখিল করা হয়েছে।  ডিপিপিতে মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী পর্যটনের সকল আধুনিক সুবিধা থাকবে বলে সূত্র জানায়।

বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার জানান, লাঙ্গলবন্দকে আধুনিক পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলার কাজ এগিয়ে চলছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ১২০৭৪ লাখ টাকার অনুমোদিত প্রকল্প রাস্তা, কালভার্ট, স্নানঘাট, গাড়ি পার্কিং, গণসৌচাগার নির্মাণ কাজ চলছে। আগত পূন্যার্থীদের জন্য মন্দির নির্মাণ ও সংস্কার, তাদের অবস্থানের জন্য ডরমেটরী  ও পোশাক পরিবর্তন কক্ষ এবং নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা স্থাপনের কাজ রয়েছে। এ ছাড়া সড়ক ও জনপথ বিভাগ লাঙ্গলবন্দ- কাইকারটেক- নবীগঞ্জ  সড়ক প্রশস্তকরণের কাজ হাতে নিয়েছে। এ জন্য ২১.৮/৩ একর ভুমি অধিগ্রহণের প্রস্তাব ভুমি মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী লাঙ্গলবন্দ এলাকায় গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক  নতুন মন্দির, ঘাট চত্বর, যাদুঘর,  ভাসমান ব্রীজ, অ্যাম্ফি থিয়েটার, হাসপাতাল, ওয়াচ টাওয়ার , বোট ক্লাব, রেস্ট হাউজ , পুলিশ বক্স, অফিস বিল্ডিং, ৩ তারকা মানের হোটেল, পাকিং কমপ্লেক্স, সাইড রোড ইত্যাদি কার্যক্রম সম্বলিত ১১০০ কোটি টাকা প্র্রাক্কলিত ব্যয়ে ডিপিপি প্রণয়ন করে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ে কাজ সমাপ্ত হবে বলে তিনি জানান।

বুধবার প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব মোঃ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া লাঙ্গলবন্দ মহাষ্টমী পূণ্যস্নান উৎসবের উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি সবাইকে দায়িত্বশীল হয়ে কাজ করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার তাগিদ দেন এবং পারস্পারিক সমন্বয়ের মাধ্যমে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ জসিমউদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( রাজস্ব) মোঃ সেলিম রেজা , স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ শাকিল আহমেদ,  বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার, সহকারী কমিশনার(ভুমি) আসমা নাসরিন  এ সময় উপস্থিত ছিলেন।





এই বিভাগের আরো সংবাদ




Leave a Reply

%d bloggers like this: