আজ: শুক্রবার | ৭ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৭ই জিলহজ, ১৪৪১ হিজরি | রাত ১১:৫২
সাহিত্য

বন্দরে বিনা মূল্যের পাঠশালা

বাংলাদেশ বার্তা | ১৬ জুলাই, ২০২০ | ১০:৩৬ পূর্বাহ্ণ

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে করোনায় থামবে না পড়া স্লোগানে করোনা দুর্যোগেও পড়াশুনা অব্যাহত রাখতে স্বেচ্ছাশ্রমে বিনাবেতনের স্কুল অদম্য পাঠশালা বন্দর শাখার কার্যক্রমের গতকাল বুধবার ৩০ তম দিন অতিবাহিত হয়েছে। প্রতিদিনের মতো আজ সকাল ৯ টায়  বন্দর উপজেলার ৩৮ নং আলীনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অদম্য পাঠশালার কার্যক্রম অনুিষ্ঠত হয়। আজকের বন্দর শাখার অদম্য পাঠশালায় উপস্থিত ছিলেন বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ফোরামের সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব ,প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের নেতা যাত্রাবাড়ি বর্নমালা স্কুলের শিক্ষক আব্দুল খালেক, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তার, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বন্দর উপজেলার আহ্বায়ক মুন্নি সরদার, সদস্য সচিব রাকিবুল হাসান রবিন, ফাতেমা আক্তার মুক্তা, বীথি প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা সংক্রমনে বাংলাদেশ বিপর্যস্ত। সাধারণ নিম্ন আয়ের মানুষ ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। করোনা অবস্থায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ রয়েছে, ফলে ছাত্রছাত্রীদের পড়াশুনায় বড় ধরণের ক্ষতি হচ্ছে। বিশেষ করে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষের সন্তানদের। শ্রমজীবি মানুষদের সন্তানদের অনেকাংশের শিক্ষা থেকে ঝড়েপড়ার আশংকা তৈরি হয়েছে। এমতাবস্থায় ঝড়েপড়া রোধে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের বিনাবেতনের পাঠশালার কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের সদর ও বন্দরে ২টি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। জেলায় আরো কিছু শাখা কার্যক্রম চালানোর প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সরকারি নির্দেশনায় বিভিন্ন স্কুল অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করেছে। কিন্তু প্রায় ৭০ ভাগ শিক্ষার্থীর পরিবারে অনলাইন শিক্ষার আয়োজন নেই। ফলে সুযোগ সুবিধা বঞ্চিত এই বিশাল অংশের শিক্ষার্থীর পড়াশুনা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। করোনা দুর্যোগে  একদিকে শিশুদের শিক্ষাজীবন ব্যাহত হচ্ছে অন্যদিকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিশু শ্রম বেড়েছে, ইতিমধ্যে বিভিন্ন্ পত্র পত্রিকায় তা এসেছে। সারাদেশে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের এই অদম্য পাঠশালার কার্যক্রম এই ঝড়ে পড়া কিছু পরিমান হলেও রোধ করতে পারবে বলে আমাদের বিশ^াস।





এই বিভাগের আরো সংবাদ




Leave a Reply

%d bloggers like this: