আজ: রবিবার | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১০ই সফর, ১৪৪২ হিজরি | দুপুর ১:০৬
শিক্ষা

বিদায় কখনো মধুর হয় না

বাংলাদেশ বার্তা | ২৬ আগস্ট, ২০২০ | ১১:২২ পূর্বাহ্ণ

দীর্ঘদিন চোখের দেখা হবে না। হবে না ছোঁয়া বা পাশাপাশি বসে আলাপ। সঙ্গী নাথান লাওনকে সিডনি বিমানবন্দরে বিদায় দেয়ার পর এমা ম্যাককার্টি ইনস্টাগ্রামে তাই লিখলেন, ‘বিদায় কখনো মধুর হয় না।

রোববার ইংল্যান্ডের উদ্দেশে সমান তিনটি করে টিটোয়েন্টি ওয়ানডে খেলতে দেশ ছেড়েছে ২১ সদস্যের অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল। এই সিরিজ শেষে আবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল খেলতে যাবেন এই দলের ১২ সদস্য। সিডনি বিমানবন্দরে গতকাল তাই আবেগতাড়িত অবস্থায় ধরা দেন অসি ক্রিকেটার তাদের সঙ্গিনীরা

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রিকেটাররা থাকবেন জৈব সুরক্ষা বেষ্টনীর ভেতর। তবুও করোনার কারণে ভয় কাটছে না তাদের পরিবারের। বিশেষ করে স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্করা ইংল্যান্ড সফরের পর আবার ধরবেন আরব আমিরাতের বিমান। প্রায় তিন মাস প্রিয়জনকে ছাড়াই কাটাতে হবে তাদের। যে কারণে তাদের পরিবারের কাছে কষ্টটা যেন একটু বেশি। তবে বাস্তবতা মেনে সঙ্গীকে শুভকামনা জানাতে দেখা গেছে বেশিরভাগকে

গত ১৩ মার্চ থেকে ক্রিকেটে নেই অস্ট্রেলিয়া। সবশেষ রিচার্ডহ্যাডলি ট্রফির একদিনের ম্যাচ খেলেছিল, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। কঠোর নিয়মকানুন মেনে হলেও, খেলায় ফিরতে পারার আনন্দটা একটু বেশি স্মিথের জন্য। তবে দর্শকশূন্য ভেন্যুতে খেলাটা আবার একটু কষ্টের বলেও জানান তিনি। বিশেষ করে ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়ার চরম দ্বৈরথের কারণে মাঠে দর্শকরা একটা বিশেষ ভূমিকা পালন করে। স্যান্ডপেপার কেলেঙ্কারির পর তো স্মিথওয়ার্নারদের দুচোখে দেখতে পারে না ইংলিশরা। বল বিকৃতি করে নিষিদ্ধ হওয়ার পর তাদের যেন আরও পেয়ে বসে বার্মিআর্মিরা

তবে গ্যালারি থেকে এবার দুয়ো ধ্বনি আসবে না ভেবে নাকি মন খারাপ স্মিথের। অনেকটা কৌতুকের ছলেই তিনি বলেন, ‘আমি সেখানে (ইংল্যান্ড) ব্যাটিং করতে ভালোবাসি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, সেখানে কেউ থাকবে না আমাকে ডিম ছুড়ে মারার মতো। তাতে করে আমার অনুপ্রেরণাও পাওয়া হবে না!’

প্রতিপক্ষ দর্শকদের দুয়ো ধ্বনি স্মিথকে ভালো খেলতে কতটা অনুপ্রেরণা দেয় তার চাক্ষুস সাক্ষী এই ইংলিশরাই। গেল বছর অ্যাশেজে স্মিথকে নিয়ে কম হাসিঠাট্টা করেনি স্বাগতিক দর্শকরা। তাতে হিতেবিপরীত হয়েছে। টেস্ট সিরিজে তার ব্যাট থেকে আসে ৭৭৪ রান। গড় দেখলে চক্ষু ছানাবড়া হবে যে কারো১১০! তার ব্যাটে ভর করে সিরিজটি ব্যবধানে ড্র করে, ট্রফি সঙ্গে নিয়েই দেশে ফেরে দলটি

প্রথমে ঠাট্টা করে সে কথা বললেও এরপর গম্ভীর হয়ে গণমাধ্যমকে সাবেক অসি অধিনায়ক বলেন, ‘দর্শক না থাকলেও টেলিভিশনের পর্দায় চোখ থাকবে অনেকের। যে কারণে সেখানে খেলাটা বেশ মজারই হবে বটে। আমি মূলত মাঠে ফিরতে মরিয়া। আমরা যে ধরনের পরিবেশে অভ্যস্ত, এটা তার ভিন্ন হবে। সুরক্ষা বেষ্টনীতে থাকব, কোনো দর্শক থাকবে না এটাও একটা চ্যালেঞ্জ। তবে আমরা তা নিতে প্রস্তুত।

যুক্তরাজ্যে পা রেখে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলকে। সাউদাম্পটনে পা রাখার আগে ডার্বিতে নিজেদের মধ্যে ৫টি আন্তঃস্কোয়াড ম্যাচ খেলে নিজেদের ঝালিয়ে নেবে অসিরা। এরপর সেপ্টেম্বর রোজ বোলে শুরু হবে টিটোয়েন্টি সিরিজ। কুড়ি ওভারের সবগুলো ম্যাচই হবে সেখানে। এরপর ম্যানচেস্টারে ১০ সেপ্টেম্বর শুরু হবে ওয়ানডে সিরিজ। টিটোয়েন্টি সিরিজের মতো সবগুলো ওয়ানডেও হবে একই ভেন্যুতে





এই বিভাগের আরো সংবাদ




Leave a Reply

%d bloggers like this: