আজ: রবিবার | ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১০ই সফর, ১৪৪২ হিজরি | দুপুর ১২:১৩
শিক্ষা

মদ-নারী নিয়ে ফুর্তির করার সময় আটক ৬

বাংলাদেশ বার্তা | ১০ আগস্ট, ২০২০ | ৬:২৮ অপরাহ্ণ

দিনাজপুরে মদ ও নারী নিয়ে ফুর্তি করার সময় জনপ্রতিনিধিসহ ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এদের বিরুদ্ধে অসামাজিক কার্যকলাপ ও মাদক সেবন করার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

রোববার বিকাল ৩ টার দিকে ৪ জন খদ্দরকে মাদক সেবন ও অসামাজিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকায় মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ ।

গত শনিবার দিবাগত রাতে দিনাজপুর জেলা পরিষদের ডাক বাংলো থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- দিনাজপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও পার্বতীপুর উপজেলার নতুনবাজার এলাকার মৃত: দেলোয়ার হোসেনের ছেলে সফিকুর রায়হান নেতা (৪৮), জেলা পরিষদের সদস্য ও চিরিরবন্দর উপজেলার থানাপাড়া এলাকার আলহাজ্ব জামাল উদ্দিন সরকারের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান (৪৬), চিরিরবন্দর উপজেলার ৭নং আউলিয়াপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও মহাদানী গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে মহির উদ্দিন কাশেম (৩৩) এবং চিরিরবন্দর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামের আব্দুল মজিদ সরকারের ছেলে জাহেদুল সরকার (৩৬)।

আটক নারীরা হলেন- সদর উপজেলার গোপালগঞ্জ এলাকার সোহেল রানার স্ত্রী সাথী ওরফে বর্না (২৬) এবং নয়নপুর এলাকার সাগর হোসেনের স্ত্রী রিনিতা আক্তার ওরফে রিশিতা ওরফে ঈশিতা (২১)।

পুলিশ জানায় , শনিবার দিবাগত রাতে জেলা পরিষদের ডাক বাংলোতে অসামাজিক কার্যকলাপ ও মাদক সেবনের খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় ডাক বাংলোর দ্বিতীয় তলার একটি ররুম থেকে মদ, মাদক সেবনের উপকরন, ২ জন নারী ও ৪ জন পুরুষকে আটক করা হয়। পরে তাদেরকে কোতয়ালী থানায় নিয়ে আসা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, আটককৃতদের কাছ থেকে একটি মদের বোতলে ৫০০ মিলি ও অপর একটি মদের বোতলে ৩০০ মিলি তরল মাদক এবং ৫টি খালি মদের বোতল, কিছু রাং পাতা, সাদা কাগজদ্বা মোড়ানো ইয়াবা ট্যাবলেট সেবনের ১০টি পাইপ এবং ৭টি গ্যাস লাইট পাওয়া গেছে।

এই ঘটনায় কোতয়ালী থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদক সেবন ও অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার ওসি মোজাফফর হোসেন বলেন, আটক ২ নারী এবং ৪ পুরুষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে আসামীদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।





এই বিভাগের আরো সংবাদ




Leave a Reply

%d bloggers like this: